বাগেরহাটের ফকিরহাটে ধ্বংসাত্মক নেক ব্লাস্ট রোগ ও হিটস্ট্রেসে দিশেহারা কৃষক
১০ মে, ২০২১ ০২:১৬ পূর্বাহ্ন

  

বাগেরহাটের ফকিরহাটে ধ্বংসাত্মক নেক ব্লাস্ট রোগ ও হিটস্ট্রেসে দিশেহারা কৃষক

আহসান টিটু, বাগেরহাট প্রতিনিধি
১৩-০৪-২০২১ ০৩:০৭ অপরাহ্ন
বাগেরহাটের ফকিরহাটে ধ্বংসাত্মক নেক ব্লাস্ট রোগ ও হিটস্ট্রেসে দিশেহারা কৃষক

বাগেরহাটের ফকিরহাটে বোরো ধান ক’দিন পরেই ঘরে তুলবে কৃষক। কিন্তু ছত্রাকজনিত সংক্রমক নেক ব্লাস্ট রোগ ও হিটস্ট্রেসে সোনার ফসল ধুসর হয়ে শুকিয়ে গিয়েছে। সারাবছর খরচের পর এখন ফসল ঘরে তোলার সময় দিশেহারা হয়ে পরেছে কৃষক।

মঙ্গলবার (১৩ এপ্রিল) সরেজমিনে গেলে উপজেলার বাহিরদিয়া পূর্ব সীমানায় গিয়ে দেখা যায় একাধিক কৃষকের জমি নেক ব্লাস্ট রোগে পুড়ে যাওয়ার মতো শুকিয়ে গিয়েছে। কেউ কেউ আক্রান্ত ধানগাছ কেটে আলাদা করছে যেন সংক্রমণ না ছড়ায়। রোগের কারণে আশানুরূপ ধান ফলন না হওয়ার আশঙ্কায় দিশেহারা তারা।

ছোট বাহিরদিয়া এলাকার কৃষক দেলোয়ার বিশ^াস বলেন, ‘আমি দুই বিঘা জমিতে ২৮ জাতের ধান চাষ করেছি। গাছ দেখে মনে হয়েছিল ফলন ভালো হবে। কিন্তু হঠাৎ করে রোগে ক্ষেতের ধানের শীষগুলো শুকিয়ে ধান চিটা হয়ে গিয়েছে। ওষুধ দিয়েও দিয়েও কোন ফল পাচ্ছি না।’

পাগলা শ্যামনগর গ্রামের ধান চাষী জয়নাল শেখ বলেন, ‘আগামরা রোগ শুরু হওয়ার পর কৃষি বিভাগের পরামর্শ অনুযায়ী কীটনাশক দিয়েও কোনও লাভ হচ্ছে না। টাকাও যাচ্ছে আবার ফসলও যাচ্ছে। করোনার কারণে সব ব্যবসা-বাণিজ্য বন্ধ। ধানের এই পচন রোগে পথে বসতে হবে। ’

উপজেলা কৃষি অফিস সূত্রে জানা যায়, চলতি বোরো মৌসুমে ফকিরহাট উপজেলায় ৮ হাজার ৪০০ হেক্টর জমিতে বোরো ধানের আবাদ হয়েছে।

কৃষি সম্প্রসারণ কর্মকর্তা তন্ময় দত্ত বলেন, ‘দিনের বেলায় গরম আর রাতে ঠান্ডা আবহাওয়ায় ২৮ জাতের ধান ক্ষেতে ওই রোগ দেখা দিয়েছে। এটি বীজ ও বাতাসের মাধ্যমে ছড়ায়। তবে ছত্রাকনাশক প্রয়োগ করে সুফল পাওয়া যাচ্ছে। করোনা ভাইরাসের প্রাদুর্ভাবের মধ্যেও আমিসহ উপসহকারী কৃষি অফিসাররা মাঠপর্যায়ে কৃষকদের পরামর্শ দিচ্ছি।’

উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা কৃষিবিদ নসরুল মিল্লাত বলেন, ‘ঝড়ো বাতাস ও অতিরিক্ত তাপমাত্রার কারণে উপজেলায় কিছুকিছু ধান ক্ষেত হিটস্ট্রেস জনিত কারণে ধানের ফুলস্তরের শীষ সাদা হয়ে গেছে। তবে সামান্য পরিমান নেক ব্লাস্ট রোগ আছে যার জন্য পরামর্শ প্রদান করা হচ্ছে।’ 


আহসান টিটু, বাগেরহাট প্রতিনিধি ১৩-০৪-২০২১ ০৩:০৭ অপরাহ্ন প্রকাশিত হয়েছে
এবং 118 বার দেখা হয়েছে।

পাঠকের ফেসবুক মন্তব্যঃ
  • সর্বাধিক পঠিত
  • সর্বশেষ প্রকাশিত

  

  ঠিকানা :   অনামিকা কনকর্ড টাওয়ার (তৃতীয় তলা),
বেগম রোকেয়া স্মরনী, শেওড়াপাড়া, মিরপুর, ঢাকা- ১২১৬
  মোবাইল :   ০১৭৭৯-১১৭৭৪৪
  ইমেল :   [email protected]