চট্টগ্রামে খাবারের ভ্যাট দিয়ে পুরস্কার জিতলেন ২ জন
০৩ আগস্ট, ২০২১ ০৭:৪৯ অপরাহ্ন

  

চট্টগ্রামে খাবারের ভ্যাট দিয়ে পুরস্কার জিতলেন ২ জন

মুহাম্মদ দিদারুল আলম, চট্টগ্রাম ব্যুরো::
২৩-০৬-২০২১ ০৩:৪৬ অপরাহ্ন
চট্টগ্রামে খাবারের ভ্যাট দিয়ে পুরস্কার জিতলেন ২ জন

করদাতাদের উদ্বুদ্ধ করতে চট্টগ্রাম নগরীর বিভিন্ন হোটেল, শপিংমল, বিউটি পার্লার, পোশাকের দোকান, জিমসহ বিভিন্ন প্রতিষ্ঠানে বসানো হয়েছে ৫শ’টিরও বেশি ইলেকট্রনিক ফিসক্যাল ডিভাইস (ইএফডি) মেশিন। ফলে নগরবাসী সহজেই কোন পণ্য কিনে সরকারকে ভ্যাট দিতে পারছেন। এদিকে ভ্যাটদাতাদের মধ্য থেকে প্রতি মাসের ৫ তারিখে ১০১ জন বিজয়ীদের মধ্যে বিতরণ করা হয় আকর্ষণীয় পুরস্কার। এই আয়োজনের মধ্য দিয়ে একদিকে করদাতাদের আগ্রহ বাড়ছে, অন্যদিকে রাজস্বও বৃদ্ধি পাচ্ছে।
বুধবার (২৩ জুন) জাতীয় রাজস্ব বোর্ডের নির্দেশনা মোতাবেক গত ৫ জুন ভ্যাট দাতাদের মধ্য থেকে প্রকাশিত ফলাফলে চট্টগ্রামের আরও ২ জন বিজয়ীর মাঝে ১০ হাজার টাকা পুরস্কার বিতরণ করা হয়। 

গত মাসের শেষের দিকে ২৫ টাকার সমুচা কিনে দেড় টাকা ভ্যাট দেন চট্টগ্রাম কলেজের রাষ্ট্র বিজ্ঞান বিভাগের ছাত্র মোহাম্মদ আল মারুফ। অপরদিকে নগরীর হালিশহর এলাকার একটি ক্যাফেটেরিয়া থেকে ৭৭৫ টাকার লাঞ্চ কিনেন মোহাম্মদ আজহারুল আনোয়ার। তারা দুজনেই ভ্যাট দিয়ে জিতেছেন ১০ হাজার টাকা পুরস্কার।

এর আগে, সোমবার (১৪ জুন) একই ফলাফলে চট্টগ্রামের আরও ১৬ জন বিজয়ীর মাঝে ১০ হাজার টাকার চেক পুরস্কার হিসেবে বিতরণ করা হয়েছিল। 

চলতি বছরের ১০ মার্চ ইএফডি মেশিনে ভ্যাট দিয়ে ১০ হাজার টাকা করে পুরস্কার জিতেছেন মোহাম্মদ নাছির উদ্দিন ও মোহাম্মদ শাহজাহান নামের চট্টগ্রামের দুই ব্যবসায়ী।

চট্টগ্রামের ভ্যাট কমিশনার মোহাম্মদ আকবর হোসেন বলেন, ‘ইএফডি মেশিনের সাহায্যে নগরবাসী সহজেই পণ্যের উপর নির্ধারিত ভ্যাটের টাকা পরিশোধ করতে পারছেন। মানুষকে ভ্যাট প্রদানে উৎসাহিত করতে প্রতি মাসের ৫ তারিখে ফলাফল ঘোষণা করে দেয়া হচ্ছে পুরস্কার। এতে একদিকে সরকারি কোষাগারে টাকা বাড়ছে। অন্যদিকে মানুষ ভ্যাট দিতে আরও বেশি উৎসাহিত হচ্ছ। পুরস্কার পেতে হলে সবাইকে ইএফডি মেশিনে লেনদেন করে ভ্যাট চালানটি সংরক্ষণ করে প্রতি মাসের ৫ তারিখে প্রকাশিত লটারি ড্রয়ের দিকে নজর রাখতে হবে।’

ভ্যাট মেশিন আছে এমন প্রতিষ্ঠান থেকে সেবা নিলেই শুধু লটারির জন্য বিবেচনা করা হবে। ভ্যাট মেশিন যে রশিদ দেবে সে রশিদ নম্বর ধরেই লটারি বিজয়ীদের ঘোষণা করা হয়। প্রতিমাসে ১০১ জন লটারির মাধ্যমে পুরস্কার জিতেন। প্রথম পুরস্কার ১ লাখ টাকা, দ্বিতীয় পুরস্কার ৫০ হাজার টাকা, তৃতীয় পুরস্কার ৫ জন ২৫ হাজার টাকা করে এবং বাকি ৯৪ জনকে ১০ হাজার টাকা করে পুরস্কৃত করা হয়।

অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন, যুগ্ম কমিশনার মুশফিকুর রহমান, যুগ্ম কমিশনার মোহাম্মদ সেলিম শেখ, উপ কমিশনার শাহীনূর কবির পাভেল, মো. আহসান উল্লাহ, সাইদ আহমেদ রুবেল, সহকারী কমিশনার অনুরূপা দেব, এইচএম কবির, এসএম সরাফত হোসেন, এআরও মোহাম্মদ আবদুল কাদির প্রমুখ। সঞ্চালনা করেন উপ কমিশনার ফাতেমা খায়রুন নূর।


মুহাম্মদ দিদারুল আলম, চট্টগ্রাম ব্যুরো:: ২৩-০৬-২০২১ ০৩:৪৬ অপরাহ্ন প্রকাশিত হয়েছে
এবং 42 বার দেখা হয়েছে।

পাঠকের ফেসবুক মন্তব্যঃ
Loading...
  • সর্বাধিক পঠিত
  • সর্বশেষ প্রকাশিত

  

  ঠিকানা :   অনামিকা কনকর্ড টাওয়ার (তৃতীয় তলা),
বেগম রোকেয়া স্মরনী, শেওড়াপাড়া, মিরপুর, ঢাকা- ১২১৬
  মোবাইল :   ০১৭৭৯-১১৭৭৪৪
  ইমেল :   [email protected]