বাঁশখালীতে শ্রমিক নিহত, বিচারবিভাগীয় তদন্ত চেয়ে রিট
১০ মে, ২০২১ ০২:২৬ পূর্বাহ্ন

  

বাঁশখালীতে শ্রমিক নিহত, বিচারবিভাগীয় তদন্ত চেয়ে রিট

এম.এ.শাকুর, সাব এডিটর
২৮-০৪-২০২১ ০৬:১৩ অপরাহ্ন
বাঁশখালীতে শ্রমিক নিহত, বিচারবিভাগীয় তদন্ত চেয়ে রিট

চট্টগ্রামের বাঁশখালী উপজেলায় কয়লাভিত্তিক বিদ্যুৎকেন্দ্রে পুলিশের গুলিতে পাঁচ শ্রমিক নিহতের ঘটনায় বিচারবিভাগীয় তদন্তের নির্দেশনা চেয়ে কয়েকটি মানবাধিকার সংগঠনের পক্ষ থেকে হাইকোর্টে রিট করা হয়েছে।

সংগঠনগুলো হলো- বাংলাদেশ পরিবেশ আইনজীবী সমিতি (বেলা), বাংলাদেশ লিগ্যাল এইড এন্ড সার্ভিসেস ট্রাস্ট (ব্লাস্ট), নিজেরা করি, সেফটি এন্ড রাইটস এবং এসোসিয়েশন ফর ল্যান্ড রিফর্ম এন্ড ডেভলপমেন্ট (এএলআরডি)।

বুধবার (২৮ এপ্রিল) বেলার প্রধান নির্বাহী ও সুপ্রিমকোর্টের আইনজীবী অ্যাডভোকেট সৈয়দ রিজওয়ানা হাসান রিটের বিষয়টি নিশ্চিত করেন।

একই সঙ্গে ওই শিল্প প্রতিষ্ঠানে দুর্ঘটনা সংবলিত বিষয়ে তদন্তেরও আর্জি করা হয়েছে রিটে। রিটের গ্রাউন্ডে বলা হয়েছে, পুলিশ গুলি করে মানুষ মেরেছে আর সেই বিষয়ে তদন্ত করবে জেলা প্রশাসক (ডিসি)। এটা কখনোই নিরপেক্ষ তদন্ত হতে পারে না। তাই বিদ্যুৎকেন্দ্রে পুলিশের গুলিতে পাঁচ শ্রমিক নিহতের ঘটনায় বিচারবিভাগীয় তদন্ত করার নির্দেশনা চাওয়া হয়েছে এবং ওই তদন্ত প্রতিবেদন আদালতে দাখিলের আর্জি জানানো হয়েছে।

স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের সচিব, আইন, বিচার ও সংসদ বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের সচিব, শিল্প মন্ত্রণালয়ের সচিব, বাণিজ্য মন্ত্রণালয়ের সচিবসহ সাত সচিব, পুলিশের মহাপরিদর্শকসহ ১৬ জনকে এতে বিবাদী করা হয়েছে।

অ্যাডভোকেট সৈয়দা রিজওয়ানা হাসান জাগো নিউজকে বলেন, রিটে আমরা বিচারবিভাগীয় তদন্ত চেয়েছি। তদন্ত শেষ না হওয়া পর্যন্ত কয়লা বিদ্যুৎকেন্দ্রের কাজ বন্ধ রাখার নির্দেশনা চেয়েছি। পাশাপাশি বাঁশখালীতে শ্রমিকদের সার্বিক অবস্থা জানতে শ্রম অধিদফতরের কাছে একটি প্রতিবেদন চেয়েছি। এছাড়া শ্রমিকদের সঙ্গে পুলিশের সংঘর্ষে ৫ নিহতের ঘটনায় ডিসি ও এসপির নেতৃত্বে গঠন করা দুটি তদন্ত কমিটির রিপোর্ট দেয়ার নির্দেশনা প্রার্থনা করেছি।

বৃহস্পতিবার হাইকোর্টের বিচারপতি এম ইনায়েতুর রহিম ও বিচারপতি সরদার মো. রাশেদ জাহাঙ্গীরের দ্বৈত ভার্চুয়াল বেঞ্চে এ বিষয়ে শুনানি হতে পারে।

এর আগে গত ২২ এপ্রিল একটি মানবাধিকার সংগঠন চট্টগ্রামের বাঁশখালী উপজেলায় কয়লাভিত্তিক বিদ্যুৎকেন্দ্রের শ্রমিক নিহতের ঘটনায় বিচার বিভাগীয় তদন্তের নির্দেশনা চেয়ে হাইকোর্টে রিট করে।

ওই রিটে পুলিশের গুলিতে নিহত প্রত্যেক পরিবারকে তিন কোটি টাকা ও আহত প্রত্যেকের পরিবারকে দুই কোটি টাকা ক্ষতিপূরণ দেয়ার নির্দেশনা চেয়ে আবেদন করা হয়। এছাড়া ওই ঘটনায় জড়িতদের বিরুদ্ধে ফৌজদারি মামলা দায়েরের নির্দেশনা চাওয়া হয়। আইন ও সালিশ কেন্দ্রের পক্ষে অ্যাডভোকেট সৈয়দা নাসরিন এ রিট দায়ের করেন।

গত ১৭ এপ্রিল চট্টগ্রামের বাঁশখালীতে কয়লা বিদ্যুৎকেন্দ্রে শ্রমিকদের সঙ্গে পুলিশের সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে। এতে পাঁচজন শ্রমিক নিহত ও অন্তত ২০ জন আহত হয়েছেন বলে জানা গেছে। আহত বেশ কয়েকজনকে বাঁশখালী স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সসহ চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ (চমেক) হাসপাতালে চিকিৎসা দেয়া হয়।

ওই বিদ্যুৎকেন্দ্রে প্রায় ছয় হাজার শ্রমিক কাজ করেন। সংঘর্ষের ওই ঘটনায় বাঁশখালী থানায় পৃথক দুটি মামলা হয়েছে। এতে অজ্ঞাতপরিচয় সাড়ে তিন হাজার ব্যক্তিকে আসামি করা হয়েছে।


এম.এ.শাকুর, সাব এডিটর ২৮-০৪-২০২১ ০৬:১৩ অপরাহ্ন প্রকাশিত হয়েছে
এবং 44 বার দেখা হয়েছে।

পাঠকের ফেসবুক মন্তব্যঃ
Loading...
  • সর্বাধিক পঠিত
  • সর্বশেষ প্রকাশিত

  

  ঠিকানা :   অনামিকা কনকর্ড টাওয়ার (তৃতীয় তলা),
বেগম রোকেয়া স্মরনী, শেওড়াপাড়া, মিরপুর, ঢাকা- ১২১৬
  মোবাইল :   ০১৭৭৯-১১৭৭৪৪
  ইমেল :   [email protected]